যাদবপুর নিখোঁজ ছাত্রের বিরুদ্ধে পোস্টারিংয়ে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা, মারধর এক পড়ুয়াকে

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 06, 2017 06:12 PM IST
যাদবপুর নিখোঁজ ছাত্রের বিরুদ্ধে পোস্টারিংয়ে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা, মারধর এক পড়ুয়াকে
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 06, 2017 06:12 PM IST

#কলকাতা: ফেসবুকে শ্লীলতাহানির বদনাম। অপমানের কারণেই নিখোঁজ যাদবপুরের ছাত্র। ফেসবুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠার পর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ যাদবপুরের পড়ুয়া সুশীল মান্ডি। সেই ঘটনায় সোমবার যাদবপুর থানায় পাঁচজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে তাঁর পরিবার। তালিকায় রয়েছেন সুশীলের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তোলা ছাত্রীও। গত বৃহস্পতিবার থেকে নিখোঁজ হুগলির আদিবাসী ছাত্র সুশীল।

সপ্তাহ দু'য়েক আগে তাঁর বিরুদ্ধে ফেসবুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলেছিলেন ফিল্ম স্টাডিজের এক ছাত্রী। শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেছিল ছাত্র সংগঠন ইউএসডিএফও। তারপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এমফিলের ছাত্র সুশীল মান্ডি। হুগলির ধনেখালির বাসিন্দা সুশীল পড়াশোনার জন্য যাদবপুরের হস্টেলেই থাকতেন। কিন্তু ২ ফেব্রুয়ারি সকাল থেকেই তাঁর কোনও হদিশ মেলেনি। হোস্টেলে মোবাইল ফেলে যাওয়ায় সমস্যা আরও বাড়ে।

এই ঘটনায় আগেই যাদবপুর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেছিল সুশীলের পরিবার। সোমবার ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করেন তাঁরা। তালিকায় USDF-এর চার সদস্যের পাশাপাশি রয়েছেন সুশীলের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তোলা ওই ছাত্রীও।

সুশীল নিখোঁজ রহস্যের মধ্যেই এদিন বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে শ্লীলতাহানির ঘটনার বিবরণ দিয়ে পোস্টারিং করছিলেন USDF -এর সদস্য কৌস্তভ মণ্ডল। সেসময় সুশীলের বন্ধুরা তাঁকে মারধর করে বলে অভিযোগ।

রবিবারই ধনেখালিতে নিখোঁজ ছাত্রের বাড়িতে যায় যাদবপুর থানার পুলিশ। সুশীলের খোঁজে যাদবপুরের অন্য পড়ুয়াদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান তদন্তকারীরা।

ক্যাম্পাস সূত্রে খবর, গত সপ্তাহে একটি সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম স্টাডিজের এক ছাত্রী এম ফিল পড়ুয়া সুশীল মাণ্ডির বিরুদ্ধে অশালীন ব্যবহার ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনেন ৷ ঘটনার সময় উপস্থিত অধিকাংশ পড়ুয়ার দাবি, ছাত্রীর অভিযোগ সত্য নয় ৷ পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র সংগঠন USDF তরফ থেকে সুশীল মান্ডির নাম করে একটি পোস্ট করা হয় ৷ যাতে সুশীলকে শ্লীলতাহানির মতো জঘন্য কাজে অভিযুক্ত বলা হয় ৷ এই পোস্টটি দেখার পর থেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল সুশীল ৷

শ্লীলতাহানির অভিযোগ ফেসবুকে করা হলেও থানায় বা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি ‘নির্যাতিতা’ ছাত্রী বা USDF ছাত্র সংগঠন ৷ ওই ছাত্রী ও USDF-এর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে পড়ুয়ার পরিবার ৷ উল্লেখ্য, নকশালপন্থী ছাত্র সংগঠন র‌্যাডিকালের নেতা সুশীল মান্ডি দলিত ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ৷

First published: 06:07:52 PM Feb 06, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर