আয়কর বিভাগের হানায় কর্ণাটকের মন্ত্রীর কাছ থেকে মিলল ১৬২ কোটি টাকা

Jan 24, 2017 10:16 AM IST | Updated on: Jan 24, 2017 03:40 PM IST

#বেঙ্গাসুরু: আয়কর বিভাগের জালে এবার ধরা পড়লেন কর্ণাটকের এক মন্ত্রী ও মহিলা প্রদেশ কংগ্রেসের প্রধান ৷ সোমবার মন্ত্রী রমেশ জারকিহলির ও মহিলা কংগ্রেস শাখার সভানেত্রী পদে লক্ষী হেব্বালকরের বাড়িতে হানা দেয় আয়কর বিভাগের আধিকারিকরা ৷ তল্লাশি চালিয়ে ৪২ লক্ষ নগদ টাকা ও ১২.৮ কেজি সোনা উদ্ধার করেছে আইটি আধিকারিকরা ৷ বেলগম, গোখাক ও বেঙ্গালুরু এই তিনটি জায়গায় তাদের বাড়িতে হানা দিয়ে বিপুল অঙ্কের নগদ টাকা ও সোনা উদ্ধার করেছে আয়কর বিভাগ ৷ পাশাপাশি আয়কর বিভাগের তরফে জানানো হয়েছে যে ১৬২ কোটির অঘোষিত আয় রয়েছে তাদের ৷ এই দুই কংগ্রেসের অভিজ্ঞ নেতৃত্বকে টাকা এবং সম্পত্তির উৎস সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে আয়কর দপ্তর।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, তল্লাশি চালানো সময়  প্রচুর বেনামি সম্পত্তি  ও অঘোষিত আয়ের নথি হাতে পেয়েছেন তারা ৷ দু’জনেই চিনি উৎপাদন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যবসা রয়েছে ৷ কিন্তু দু’জনেই পরিকল্পিত ভাবে কর ফাঁকি দিয়ে এসেছেন ৷

আয়কর বিভাগের হানায় কর্ণাটকের মন্ত্রীর কাছ থেকে মিলল ১৬২ কোটি টাকা

মন্ত্রী রমেশ এল জারকিহলির সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছেন এই সমস্তটা রাজনৈতিক চক্রান্ত ৷ তিনি জানান, আয়কর আধিকারিকরা এসেছিলেন ৷ আমরা তাঁদের সঙ্গে সমস্ত রকম সহযোগিতা করেছি এবং ভবিষ্যতেও তাই করব ৷

কর ফাঁকি দড়তে হানা দেয় আয়কর আধিকারিকরা ৷ তল্লাশি চালিয়ে তারা জানতে পেরেছেন যে প্রচুর টাকা অভিযুক্তদের পরিবারের বাকিদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে রাখা হয়েছে ৷ তারা আরও অভইযোগ জানিয়েছেন, যখন তারা তল্লাশি চালাচ্ছিলেন বাড়ির বাইরে প্রচুর সংখ্যাক এলাকাবাসীরা জড়ো হয়ে গিয়েছিল ৷ তল্লাশি অভিযান বন্ধ করার প্রচেষ্টাও চালানো হয়েছিল ৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে৷  বেশ কয়েকজন যারা এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES