বর্বরতার বদলা, মিসাইল হামলায় পাক বাঙ্কার গুঁড়িয়ে দিল ভারত

May 08, 2017 11:01 AM IST | Updated on: May 08, 2017 11:04 AM IST

#জম্মু: পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর বর্বরতার উচিত ও যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারত ৷ রাজৌরির কালসিয়া সেক্টরে মিসাইল হামলায় গুঁড়িয়ে গেল একাধিক পাক বাঙ্কার ৷ দুই ভারতীয় জওয়ানের মুন্ডুচ্ছেদের প্রত্যাঘাত ভারতের ৷ অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল দিয়ে ভারতীয় সেনার আক্রমণে ধুলিসাৎ দুটি পাক সেনা ছাউনি ৷ ৬ মে-র অভিযানের সেই ভিডিও প্রকাশ্যে এল ৷

পয়লা মে সীমান্তে সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে হামলা চালিয়ে দুই জওয়ানকে হত্যা করার পর, জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে শহিদদের মুণ্ডুচ্ছেদ করে নিজেদের সঙ্গে নিয়ে ফিরে যায় পাক সেনাবাহিনী ৷ গোটা ঘটনার তীব্র নিন্দা করে ভারত জানায়, এই ঘটনার বদলা নিতেই হবে ৷ এই ঘটনার যোগ্য জবাব পাকিস্তানকে দিতে হবে বলে এই বিবৃতিতে জানায় সেনার নর্দান কম্যান্ড ৷ সেই মতোই শুরু হয় ভারতীয় সেনার প্রত্যুত্তর ৷

পুঞ্চের কৃষ্ণঘাঁটিতে শহীদদের রক্তে রাঙানো মাটিতে দাঁড়িয়েই পাক সেনার বর্বরতার পাল্টা জবাব দিল ভারত ৷ কৃষ্ণঘাঁটির বিপরীতে থাকা পাক সেনা ছাউনি মিসাইল দিয়ে গুঁড়িয়ে দিল ভারত ৷ ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে লাগাতার মিসাইল অ্যাটাকে একমিনিটেরও কম সময়ে ধূলিসাৎ পাক বাঙ্কারগুলি ৷

২ মে, গত সোমবারও ভারতীয় ভূখন্ডের অন্তর্গত কিরপান ও পিম্পল সেনা পোস্ট থেকে লাগাতার আক্রমণ চালানো শুরু করে ভারত ৷ ভারতীয় বাঙ্কারের গোলায় ধূলিসাৎ হয়ে যায় দুই পাক সেনা ছাউনি ৷ সেনা সূত্রে খবর, ছাউনি দুটিতে আশ্রয় নেওয়া ৬৪৮ মুজাহিদ্দিন জওয়ান ছাড়াও কমপক্ষে ৭-৮ জন পাক সেনার মৃত্যু হয়েছে ৷ এছাড়াও আহত হয় বেশ কয়েকজন পাক রেঞ্জার্স ৷

তথ্যের অধিকার আইনে করা প্রশ্নের জবাবে সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, ২০১৫ ও ২০১৬ সালে প্রাত্যহিক কাজের মতো প্রতিদিনই সংঘর্ষ চুক্তি ভঙ্গ করেছে পাকিস্তান ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES