প্রথম ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধি মাত্র ৫.৭%, উদ্বেগ জেটলির

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 01, 2017 07:16 PM IST
প্রথম ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধি মাত্র ৫.৭%, উদ্বেগ জেটলির
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 01, 2017 07:16 PM IST

#নয়াদিল্লি: সব হিসাব বদলে দিল প্রথম ত্রৈমাসিকের পরিসংখ্যান। একের পর এক ধাক্কায় ধরাশায়ী ভারতীয় অর্থনীতি। গত তিন বছরের মধ্যে এই প্রথম ৬ শতাংশের নীচে নামল আর্থিক বৃদ্ধি। নোট বাতিলের জেরেই এই ধাক্কা। মাত্রা ছাড়িয়েছে রাজস্ব ঘাটতিও। জিএসটির ফল কী দাঁড়াবে তা এখনও স্পষ্ট নয়। সবমিলিয়ে ভারতীয় অর্থনীতির সামনে যে নজিরবিহীন চ্যালেঞ্জ, তা অনেকটাই স্পষ্ট। মোদি সরকারের একের পর এক নীতি ব্যুমেরাং হয়েছে, তাও অনেকটাই স্পষ্ট।

সব আশা, সব প্রতিশ্রুতি ফিকে হওয়ার মুখে। মোদি জমানার সবকটি আর্থিক সিদ্ধান্তই কি ভুল ছিল? যার খেসারত দিতে গিয়ে চরম সংকটের মুখে ভারতীয় অর্থনীতি?

ব্যর্থতার দায় 

--

নোট বাতিল

-- প্রথম অর্থবর্ষে বৃদ্ধি কমল অন্তত ১ শতাংশ

বাজেট এগিয়ে রাখা

-- সরকারের বিপুল খরচ বৃদ্ধি

জিএসটি

- কর সংগ্রহের ছবি স্পষ্ট নয়

চাকরি ও বিনিয়োগ

- দুইক্ষেত্রেই নেই আশার আলো

আন্তর্জাতিক মহামন্দার ছোঁয়াচ থেকে দূরেই ছিল ভারত। নোট বাতিল আর কেন্দ্রের ভুল আর্থিক নীতিতে দেশেই এবার নতুন মন্দার আশঙ্কা। কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান সংস্থার তথ্য কাটাছেঁড়া করেই উঠে আসছে এই সম্ভাবনা।

অর্থনীতিতে আশঙ্কা 

প্রথম ত্রৈমাসিকে আর্থিক বৃদ্ধির হার ৫.৭ শতাংশ

এই হার গত ৩ বছরে সর্বনিম্ন

আর্থিক বৃদ্ধি ৫.৭ শতাংশে থাকবে বলে পূর্বাভাস ছিল

জুলাইতেই রাজস্ব ঘাটতি ৯২ শতাংশ অর্থা‍ৎ ৫ লক্ষ কোটি টাকার বেশি

বাজেট ঘাটতি ৩.২ শতাংশে ধরে রাখা কার্যত অসম্ভব

পরিকল্পনা বহির্ভূত খাতে খরচ বেড়েছে ৬৭ শতাংশ

কিন্তু কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান সংস্থার তথ্যে স্পষ্ট, নোট বাতিলে ক্ষতি অন্তত এক লক্ষ কোটি টাকা। এর জেরে কমেছে আম-আদমির ক্ষয়ক্ষমতা। কৃষির মরশুমেও বেড়েছে বেকারত্ব। সামাজিক প্রকল্পে খরচ বাড়লেও তার প্রভাব অর্থনীতিতে পড়েনি। চিন্তার ভাঁজ খোদ অর্থমন্ত্রীর কপালেও।

নোট বাতিল ধাক্কার মধ্যেই আশঙ্কা জিএসটি নিয়ে। অভিন্ন কর-ব্যবস্থা চালুর পর কর সংগ্রহ বাড়লেও আদতে কর সংগ্রহের ছবিটা কি দাঁড়াবে স্পষ্ট নয়।

জিএসটি ধোঁয়াশা

রাজ্যগুলিকে ক্ষতিপূরণ বাবদ অর্থ দিতে হবে

স্টক ক্লিয়ার করার পর উৎপাদন কমাতে পারে কর্পোরেট সংস্থাগুলো

চাহিদা না থাকায় কমতে পারে উৎপাদন

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মোদি সরকারের শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট। মানবিক মুখ দেখানোর বাধ্যবাধকতা থাকবে। কি করবেন অরুণ জেটলি? আদৌ কি কোনও পথ খোলা আছে তার সামনে?

First published: 07:16:58 PM Sep 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर