বোধনে ছন্দে পাহাড়, হুঁশিয়ারি উড়িয়ে ষষ্ঠীতে খুলল বহু দোকান

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 26, 2017 05:21 PM IST
বোধনে ছন্দে পাহাড়, হুঁশিয়ারি উড়িয়ে ষষ্ঠীতে খুলল বহু দোকান
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 26, 2017 05:21 PM IST

#দার্জিলিং: বোধনে ছন্দে পাহাড়। প্রশাসন ও মোর্চার যৌথ আশ্বাসে একটু একটু করে মিলিয়ে যাচ্ছে বনধপন্থীদের হুঁশিয়ারি। নিরাপত্তার আশ্বাসে যত দিন যাচ্ছে, ততই স্বাভাবিক হচ্ছে পাহাড়। আজ, এলাকার পঞ্চাশ শতাংশেরও বেশি দোকান খুলে যায়। জারি মোটরস্ট্যান্ড থেকে গাড়ি চলাচলও।

পাহাড়বাসীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে দার্জিলিং জেলা প্রশাসন। বোধনের দিন থেকেই অনেকটা সচল পাহাড়। বনধপন্থীদের হুঁশিয়ারি উড়িয়ে দিয়ে এবার সক্রিয় দার্জিলিঙের সাধারণ মানুষ।

উৎসবের মরশুম। অথচ লাগাতার বন্্ধের জেরে হাতে কাজ নেই। সমস্যা মেটার বদলে খাদ্য সংকট তীব্র হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে, বন্্ধপন্থীদের হুমকি উপেক্ষা করে এবার এগিয়ে এলেন সাধারণ মানুষ। মঙ্গলবার, দার্জিলিঙের চকবাজার ও জজবাজারের পঞ্চাশ শতাংশেরও বেশি দোকান খোলেন ব্যবসায়ীরা। ফুটপাথেও শুরু হয় বিকিকিনি। সবজি ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে ভিড় জমাতে থাকেন ক্রেতারা।

দার্জিলিঙের মোটরস্ট্যান্ড থেকে গাড়ি চলাচল শুরু হয়ে গিয়েছে। কয়েকটি রেস্তোরাঁও খুলে গিয়েছে। এমনকী নীচ থেকে পাহাড়ে ওঠানামাও চলছে। প্রশাসনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বন্্ধ বিরোধিতার প্রচারে নেমেছে মোর্চার একটি বড় অংশ। সাফল্যে খুশি মোর্চা নেতারা।

তিন মাসেরও বেশি জারি বনধ। কবে কাটবে বন্্ধের গেরো? বনধপন্থীদের তরফে কোনও উত্তর নেই, উলটে হুঁশিয়ারি আছে। সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সাহস জুগিয়েছে প্রশাসন ও মোর্চার একটি বড় অংশ। আর তাতেই ম্যাজিকের মতো কাজ হল।

First published: 05:21:54 PM Sep 26, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर