বিজেপির বাইক র‍্যালির অনুমতি দিল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 07:38 PM IST
বিজেপির বাইক র‍্যালির অনুমতি দিল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 07:38 PM IST

#কলকাতা: বিজেপির বাইক র‍্যালির অনুমতি দিল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। বৃহস্পতিবার দফায় দফায় শুনানির পর শর্তসাপেক্ষে বাইক মিছিলের অনুমতি পায় বিজেপির যুব মোর্চা। র‍্যালির ক্ষেত্রে নিয়মভঙ্গ হচ্ছে কিনা, দেখতে স্পেশাল অফিসার নিয়োগেরও নির্দেশ ডিভিশন বেঞ্চের। প্রয়োজনে র‍্যালি বন্ধ করে দেওয়ার ক্ষমতাও দেওয়া হল স্পেশাল অফিসারকে।

বিজেপির যুব মোর্চার বাইক র‍্যালির অনুমতি দিল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। বৃহস্পতিবার দফায় দফায় শুনানির পর শর্তসাপেক্ষে বাইক মিছিলের অনুমতি পায় বিজেপির যুব মোর্চা। র‍্যালির ক্ষেত্রে নিয়মভঙ্গ হচ্ছে কিনা, দেখতে দায়িত্ব দেওয়া হল স্পেশ্যাল অফিসার রবিশংকর দত্তকে। প্রয়োজনে র‍্যালি বন্ধ করে দেওয়ার ক্ষমতাও দেওয়া হল স্পেশাল অফিসারকে।

ডিভিশন বেঞ্চেও বহাল সিঙ্গল বেঞ্চের রায়। বিজেপির যুব মোর্চাকে শর্তসাপেক্ষে বাইক র‍্যালির অনুমতি দিল হাইকোর্ট। র‍্যালির অনুমতি দিলেও বেশ কিছু শর্ত চাপিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ।

নজরদারি করবেন স্পেশাল অফিসার

প্রতি জেলা থেকে একজন করে জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটও নজরদারিতে থাকবেন

একদিন আগে রুট জানাতে হবে স্পেশাল অফিসারকে

তিনি জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটকে সঙ্গে নিয়ে পুরো র‍্যালির সঙ্গে থাকবেন

প্রয়োজনে র‍্যালি বন্ধের নির্দেশও দিতে পারবেন স্পেশাল অফিসার

প্রথম দিন - ১১ জানুয়ারি

কাঁথি থেকে র‍্যালি শুরু হয়ে কোলাঘাট ও হাওড়া হয়ে বাগবাজারে শেষ

ওইদিনই পুরুলিয়া থেকে শুরু করে বর্ধমান সদর পর্যন্ত র‍্যালি

দ্বিতীয় দিন - ১২ জানুয়ারি

বিবেকানন্দর বাড়ি থেকে শুরু হয়ে বারাসাত-বারাকপুর-চাকদা হয়ে শান্তিপুর।

আরেকটি র‍্যালি বর্ধমান সদর থেকে শান্তিপুর। এই মিছিলের অনুমোদন দেয়নি হাইকোর্ট

তৃতীয় দিন - ১৩ জানুয়ারি

বীরভূম থেকে বহরমপুর। এই মিছিলটিও বাতিলের নির্দেশ

কৃষ্ণনগর থেকে বহরমপুর র‍্যালি অবশ্য হবে

মালদা থেকে উত্তর দিনাজপুর, শিলিগুড়ি, মালবাজার ধূপগুড়ি, আলিপুরদুয়ার হয়ে মিছিল পৌঁছবে কোচবিহার

বিজেপি যুব মোর্চার র‍্যালির অনুমতি দিতে রাজি হয়নি প্রশাসন। যুব মোর্চার আবেদনের প্রক্ষিতে বুধবার র‍্যালির অনুমতি দেয় হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে যায় রাজ্য প্রশাসন। রাজ্যের যুক্তি ছিল,

নিরাপত্তা ও অশান্তির আশঙ্কাতেই র‍্যালির অনুমতি দেওয়া হয়নি। বিজেপির যুব মোর্চার অনুমোদন নেই। এই মামলা গ্রাহ্য হওয়া উচিত নয়

-- অ্যাডভোকেট জেনারেল

পালটা যুক্তি পেশ করা হয় বিজেপির তরফে।

অনুমতি খারিজের যে নির্দেশ, তাতে রাজ্য বিজেপি সভাপতিকে পাঠানো হয়। তাই ঘুরিয়ে পুলিশ স্বীকার করে নিচ্ছে এটা বিজেপিরই সংগঠন।

র‍্যালি নিয়ে হাইকোর্টের রায়ে নিজেদের জয় দেখছে বিজেপি। অন্যদিকে র‍্যালি ঘিরে বিধিনিষেধ চাপায় স্বস্তি রাজ্য প্রশাসনেও।

First published: 07:38:12 PM Jan 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर