জাতীয় স্তরে বহু পদক জিতেও এখন চায়ের দোকান চালান এই ভারোত্তলক

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 11, 2017 09:15 PM IST
জাতীয় স্তরে বহু পদক জিতেও এখন চায়ের দোকান চালান এই ভারোত্তলক
বাবার সঙ্গে নিজেদের চায়ের দোকানে সন্তোষ ৷ Photo: News18 Haryana
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 11, 2017 09:15 PM IST

#গুরগাঁও: ভারতে হয়তো এই কারণেই একটা কথা অনেকদিন ধরেই প্রচলিত যে ক্রিকেট ছাড়া বাকি সব খেলাতেই ক্রীড়াবিদদের আর্থিক অভাব দেখতে পাওয়াটা খুব একটা অস্বাভাবিক কিছু নয় ৷ ২৩ বছরের মহিলা ভারোত্তলক সন্তোষ প্র্যাকটিসের সময় হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন ৷ চিকিৎসার জন্য তাঁর কাছে ছিল না টাকা ৷ অনেক জায়গায় ঘুরেও কোনও লাভ হয়নি ৷ কারণ মেলেনি অর্থ-সাহায্য ৷ এর জন্য শেষপর্যন্ত খেলাই ছেড়ে দিতে বাধ্য হন সন্তোষ ৷

হরিয়াণা সরকারের তরফে সন্তোষকে চিকিৎসার জন্য অবশ্য পরে দু’লক্ষ টাকা দেওয়া হলেও অ্যাথলিটকে কোনও চাকরি দেওয়া হয়নি ৷ সন্তোষের পরিবার সরকারের কাছে মেয়ের চাকরির জন্য অনেকবার আবেদন করেও কোনও লাভ হয়নি ৷ জাতীয় ও রাজ্য স্তরের পাওয়ার লিফটিংয়ে সন্তোষের ৭টা সোনার পদক রয়েছে ৷ কিন্তু তাতেও জোটেনি কোনও চাকরি ৷ খেলা ছেড়ে দেওয়ার পর এখন চায়ের দোকান খুলে এখন জীবন কাটাচ্ছেন সন্তোষ ৷ শুধুমাত্র চায়ের দোকানই যথেষ্ট নয়, তাই একটি বেসরকারি সংস্থায় চাকরিও করেন সন্তোষ ৷ তাঁর বাবা রাজেন্দ্র কুমার চায়ের দোকান চালান ৷ এছাড়া ভাড়া বাড়িতেই থাকেন তাঁরা ৷ পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৭ ৷ এত বড় পরিবারকে চালানো মোটেই সহজ কাজ নয় ৷ বলা বাহুল্য, অত্যন্ত কষ্টের মধ্যেই দিন কাটছে সন্তোষ এবং তাঁর পরিবারের ৷

sports6

First published: 09:15:49 PM May 11, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर