১০ নয়, ধর্ষণের অপরাধে বাবা রাম রহিমের ২০ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 28, 2017 07:46 PM IST
১০ নয়, ধর্ষণের অপরাধে বাবা রাম রহিমের ২০ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 28, 2017 07:46 PM IST

 #রোহতক: তিন বছর ধরে টানা ধর্ষণ করেছিলেন স্বঘোষিত ধর্মগুরু। শাস্তি হিসাবে জেলে কাটাতে হবে ২০ বছর। দুই সাধ্বীকে ধর্ষণের দায়ে গুরমিত রাম রহিমকে ১০ বছর করে দুটি অপরাধে কারাদণ্ডের রায় দিল বিশেষ সিবিআই আদালত। জেলে বাড়তি কোনও সুবিধা জুটবে না স্বঘোষিত ধর্মগুরুর। আর্থিক জরিমানাও করা হয়েছে রাম রহিমকে। জেলে ঢুকলেও এদিন আদালতে বারবারই নিজের মহিমা দেখালেন বাবা। বারবার নাটক করে সাজা কমানোরও নিষ্ফল চেষ্টা করলেন।

প্রথমে ডেরা সাচ্চা সওদা প্রধান গুরমিত রাম রহিমের দশ বছরের সাজা হয়েছে বলে বিভ্রান্তি ছড়ায় ৷ কিন্তু পরে রায়ের কপি হাতে পেলে জানা যায়, দুই সাধ্বীকে ধর্ষণের দায়ে পৃথক ভাবে ১০-১০ বছরের সাজা ঘোষণা করেছে আদালত ৷ প্রথম ১০ বছরের সাজার শেষে শুরু হবে আরেকটি সাজা ৷ রাম রহিমের ৩০ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য করেছে আদালত ৷ এছাড়া দুই নির্যাতিতাকে ১৪ লক্ষ টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত ৷ ৩৭৬, ৫০৬, ৫০৯, ৫৩৬ ধারায় দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু ৷

তার এতই মহিমা যে পাঁচকুলার বদলে রোহতকের জেলেই বসেছিল অস্থায়ী আদালত। রায় ঘোষণার আগে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় নাটক করতেও বাকি রাখেননি। তবে এতকিছুতেও শেষরক্ষা হল না। ধর্ষণ মামলায় গুরমিত রাম রহিমকে ১০ বছরের হাজতবাসের নির্দেশ দিল সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত। বিচারক জগদীপ সিংয়ের পর্যবেক্ষণ, নজিরবিহীন অপরাধ করেছেন গুরমিত রাম রহিম।

সমাজে নিজের ভাবমূর্তিকে ব্যবহার করে জঘন্য অপরাধ করেছেন অভিযুক্ত। নিজের কুকীর্তি ঢাকার চেষ্টা করেছেন। সমাজের ওপর এর প্রভাব মারাত্মক।

- জগদীপ সিং, বিচারক, সিবিআই আদালত

চার্জশিটে আনা সব ধারাই প্রমাণিত রাম রহিমের বিরুদ্ধে।

৩৭৬ - ধর্ষণ

৫০৬ - অপরাধমূলক ভীতি প্রদর্শন

৫০৯- মহিলার সম্মানহানি

সাজা ঘোষণার জন্য পাঁচকুলা থেকে চপারে উড়িয়ে রোহতকের জেলেই উড়িয়ে আনা হয়েছিল বিচারককে। জেলের কনফারেন্স রুমেই শুরু হয় সাজা ঘোষণার পর্ব।

বেলা ২.৩৭

বক্তব্য জানাতে দু পক্ষের আইনজীবীকে ১০ মিনিট করে সময় বিচারকের

২.৪৯

রাম রহিমের ওপর নির্ভরশীল ২৫ হাজার মানুষ। সমাজসেবার দোহাই দিয়ে নমনীয় হওয়ার আবেদন বাবার আইনজীবীর

বিকেল ৩.০৪

সবোর্চ্চ শাস্তির পক্ষে সওয়াল সরকারি আইনজীবীর

৩.০৭

অপরাধের জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা রাম রহিমের

৩.১০

অতিরিক্ত সময় নেওয়ার জন্য ক্ষোভ বিচারকের

৩.১২

দুই আইনজীবীকে আদালত ছাড়ার নির্দেশ

৩.২৭

রাম রহিমকে দুটি আলাদা মামলায় ১০ বছর করে কারাদণ্ড

খারিজ জেলে বাড়তি সুবিধা দেওয়ার আবেদন

সাজা ঘোষণার আগে ও পরে অসুস্থতার নাটক করেও লাভ হয়নি। জেলে সাধারণ কয়েদির মতোই কাটাতে হবে ৫ কোটি ভক্তের গুরুকে। শুক্রবার দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর ভিআইপি আরামে ছিলেন গডম্যান। সে নিয়ে বিচারকের তীব্র ক্ষোভের মুখে পড়তে হয় হরিয়ানা পুলিশকে। বিচারকের নির্দেশ, ভবিষ্যতে এমনটা ঘটলে স্বতঃপ্রণোদিতভাবে আদালত অবমাননার দায়ে পড়তে হবে পুলিশকে।

বাবার জামিনের আবেদনেও আগামী সপ্তাহেই হাইকোর্টে যাচ্ছে ডেরা। সেখানে আবার অন্য আইনি লড়াই। সিবিআই সূত্রে অবশ্য ইঙ্গিত, উচ্চতর আদালতে বাবা গুরমিত রাম রহিমের শাস্তির মেয়াদ বৃদ্ধির আবদন করা হবে।

First published: 07:43:17 PM Aug 28, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर