ঘরের মধ্যে সুড়ঙ্গ! ইন্টারভিউ নিয়ে নিয়োগের পর ২৬টি কুঠুরিতে চলত দেহব্যবসা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 05, 2018 07:28 PM IST
ঘরের মধ্যে সুড়ঙ্গ! ইন্টারভিউ নিয়ে নিয়োগের পর ২৬টি কুঠুরিতে চলত দেহব্যবসা
representative image
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 05, 2018 07:28 PM IST

 #কলকাতা: খাস কলকাতায় বড়বাজারে মিলল মধুচক্রের খোঁজ ৷ বড়বাজার এলাকার বহুতলে ২৬টি কুঠুরিতে চলছিল দেহব্যবসা ৷ রীতিমতো পালানোর জন্য তৈরি করা হয়েছিল সুড়ঙ্গ। বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে বহু তরুণীর বায়োডাটা ৷ ইন্টারভিউ নিয়ে নাকি নিয়োগ করা হত মধুচক্রে ৷ পলাতক অভিযুক্ত বাড়ি মালিক প্রমোদ সিংঘানিয়া এলাকায় বাবা রাম রহিমের শিষ্য বলে পরিচিত ৷

খোদ বড়বাজার থানার নাকের ডগাতেই চলছিল এই বেআইনি মধুচক্র ৷ একইসঙ্গে চাকরির টোপ দিয়ে দেহব্যবসায় জড়িয়ে ফেলার অভিযোগও উঠেছে। প্রাথমিক তদন্তে প্রকাশ চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে সুন্দরী, উচ্চশিক্ষিত যুবতীদের ডেকে আনা হত ৷ পরে ব্ল্যাকমেল করে দেহব্যবসায় নামতে বাধ্য করা হত ৷

দীর্ঘদিন ধরেই স্থানীয় বাসিন্দারা ওই বাড়িটিতে চলা কার্যকলাপ সম্বন্ধে সন্দিহান ছিলেন ৷ তারা জানিয়েছেন, প্রায়সই কমবয়সী অপরিচিত যুবক-যুবতীদের জোড়ায় জোড়ায় ওই বাড়িতে আসতে দেখা যেত ৷ গত সপ্তাহে অন্তরঙ্গ অবস্থায় এক কাপলদের দেখতে পেলেও ধরতে পারা যায়নি ৷ সন্দেহজনক গতিবিধির কারণে বড়বাজার থানায় অভিযোগ জানানো হয় ৷ এরপরই তদন্তে নামে পুলিশ সামনে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য ৷ পলাতক অভিযুক্ত প্রমোদ সিংঘানিয়া। গেস্টহাউসটিতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ ৷

First published: 07:20:51 PM Jan 05, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर