খুদে পড়ুয়ার খুনের প্রতিবাদে উত্তপ্ত রায়ান ইন্টারন্যাশনাল, সিবিআই তদন্তে আপত্তি নেই সরকারের

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2017 06:10 PM IST
খুদে পড়ুয়ার খুনের প্রতিবাদে উত্তপ্ত রায়ান ইন্টারন্যাশনাল, সিবিআই তদন্তে আপত্তি নেই সরকারের
Gurugram Student Murder
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2017 06:10 PM IST

#গুরুগ্রাম:  ছাত্র খুনের ঘটনার প্রতিবাদে রবিবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠল গুরুগ্রামের রায়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল চত্বর। অভিভাবকদের ওপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। আক্রান্ত সংবাদমাধ্যমও। অন্য কাউকে বাঁচাতেই বলির পাঁঠা করা হচ্ছে বাসের খালাসিকে। দাবি নিহত প্রদ্যুম্নের বাবার।

রায়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে সাত বছরের পড়ুয়ার হত্যায় এবার দায়িত্বভার পেতে পারে সিবিআই ৷ খুদে পড়ুয়ার নৃশংস খুনের তদন্তে কোনও ফাঁক যাতে না থাকে তার জন্য সিবিআই দাবি করেছে পরিবার ৷ সিবিআই তদন্তে যে কোনও আপত্তি নেই তা জানিয়ে দিয়েছে হরিয়ানা সরকার ৷

ধরা পড়েছে অভিযুক্ত। তারপরও ক্ষোভ কমেনি অভিভাবকদের। শনিবারের পর রবিবারও স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। সিবিআই তদন্তের দাবি তোলেন বিক্ষোভকারীরা। স্কুলের পাশে একটি মদের দোকানে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিক্ষোভকারীদের উপর লাঠি চালাতে শুরু করে পুলিশ।

পুলিশের লাঠিতে জখম হন বেশ কয়েকজন। বাদ জাননি সংবাদিকরাও। ভেঙে ফেলা হয় ক্যামেরা। যদিও লাঠিচার্জের অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার স্কুলের শৌচাগার থেকে উদ্ধার হয় সাত বছরের প্রদ্যুম্নের রক্তাক্ত দেহ। ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে স্কুলবাসের খালাসি অশোক কুমারকে। খুনের কথা সে স্বীকার করেছে বলেও দাবি পুলিশের। ঘটনার জেরে সাসপেন্ড হয়েছেন প্রিন্সিপাল নীরজ বাত্রা। কিন্তু নিহত শিশুর পরিবারের অভিযোগ, বিশেষ কাউকে বাঁচাতেই তাঁদের ফাঁসানো হচ্ছে।

ছাত্র খুনের ঘটনায় আরও কেউ জড়িত থাকলে, তাঁদের বিরুদ্ধেও যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন হরিয়ানার শিক্ষামন্ত্রী।

তদন্তের বিষয়ে রাজ্য আশ্বাস দিলেও, অভিভাবকদের ওপর লাঠিচার্জের ঘটনার নিন্দা করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল।

First published: 06:05:57 PM Sep 10, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर