ফের নদীয়ায় ধরা পড়ল ভুয়ো স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 13, 2018 10:25 AM IST
ফের নদীয়ায় ধরা পড়ল ভুয়ো স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 13, 2018 10:25 AM IST

#নদিয়া: নামের পাশে লেখেন এমবিবিএস। নিজেকে স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবেও দাবি করেন। তবে চিকিৎসা করেন অন্যের রেজিস্ট্রেশন নম্বরে। নদিয়ার হবিবপুরে ক্লিনিক খুলে বসে পসার জমিয়েছেন চিকিৎসক অজিতকুমার হালদার। ধরা পড়তেই চিকিৎসক স্বীকার করেন, আদৌ এমবিবিএস পাশই করেননি তিনি। খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান।

নদিয়ার হবিবপুরের বিশ্ব ফ্যামিলি ক্লিনিক। এখানেই দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা করেন অজিত কুমার হালদার। এমবিবিএস, স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে এলাকায় পরিচিত অজিতবাবু।  তাঁর দাবি, গুয়াহাটির একটি প্রাইভেট কলেজ থেকে এমবিবিএসে ডিপ্লোমা করেছেন। যদিও তা বৈধ নয়।

এমনকী ভুয়ো রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়েই দিনের পর দিন চিকিৎসা করছেন।

ভুয়ো রেজিস্ট্রেশন নম্বরে চিকিৎসা

-৪০৫৯- এই রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করেন অজিতকুমার হালদার

- কিন্তু ওই রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা সাইনি কুমার খেসের নামে নথিভুক্ত

আরও অভিযোগ, ওই চিকিৎসক ক্লিনিকে গর্ভপাত করানো থেকে প্রসূতিদের বিভিন্ন অস্ত্রোপচারও করেন।

চিকিৎসকের দাবি, নদিয়া জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের থেকে বিশ্ব ফ্যামিলি ক্লিনিকের একটি লাইসেন্সও বের করেছেন ওই চিকিৎসক।

স্থানীয়দের কাছে ভাল চিকিৎসক হিসেবেই পরিচিত অজিতকুমার হালদার। তবে আসল ঘটনা জেনে ক্ষুব্ধ তাঁরাও।

অজিত কুমার হালদার জন্ম ও মৃত্যুর শংসাপত্রও দিয়ে থাকেন। এমবিবিএস পাশ না করেও কীভাবে দিনের পর দিন এলাকায় পসার জমিয়েছিলেন ওই চিকিৎসক। কেনই বা নজর এড়াল পুলিশ-প্রশাসনের? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

First published: 10:25:56 AM Jan 13, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर