দক্ষিণ কলকাতায় বাড়ছে ডায়েরিয়ার প্রকোপ, রাত থেকে সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১২০ জন

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 13, 2018 09:57 AM IST
দক্ষিণ কলকাতায় বাড়ছে ডায়েরিয়ার প্রকোপ, রাত থেকে সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১২০ জন
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 13, 2018 09:57 AM IST

#কলকাতা: বমি। পেটে অসহ্য যন্ত্রণা আর বারবার মলত্যাগ। উপসর্গ কমবেশি একই। বাঘাযতীন, বৈষ্ণবঘাটা, পাটুলি, রামগড়-সহ দক্ষিণ কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকায় ঘরে ঘরে ছড়াচ্ছে ডায়েরিয়া। প্রাপ্তবয়স্ক থেকে শিশু বাদ যাচ্ছেন না কেউই। ক্রমশ বাড়ছে অসুস্থের সংখ্যা। বাড়ছে পানীয় জল কেনার ভিড়।

দক্ষিণ কলকাতায় বাড়ছে ডায়েরিয়ার প্রকোপ। গড়িয়া, পাটুলি, বৈষ্ণবঘাটা, ঢাকুরিয়ায় ছড়াচ্ছে রোগ। গতকাল রাত থেকে সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১২০ জন। তাদের মধ্যে ৭২ জন বাঘাযতীন হাসপাতালে ভর্তি। বেড না থাকায় অনেককেই ইনজেকশন,ওষুধ দিয়ে ফেরানো হচ্ছে ৷

ডায়েরিয়ার উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে ছড়াচ্ছে আতঙ্ক। পুরসভার সরবরাহ করা জল খেতে ভয় পাচ্ছেন অনেকেই।

দোকানে দোকানে মিনারেল ওয়াটার কেনার ভিড়। ডায়েরিয়া প্রবণ ওয়ার্ডগুলিতে চড়ছে জলের দাম।

আরও ছড়াচ্ছে ডায়েরিয়া। সোমবার দক্ষিণ কলকাতার বেশ কয়েকটি অঞ্চল থেকে নতুন করে ছড়ায় ডায়েরিয়া। সেলিমপুর, হালতুর মতো অঞ্চলে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বেশ কয়েকজনকে। যত বেলা গড়িয়েছে ততই ভিড় বেড়েছে পুর-স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও হাসপাতালে।

পুরসভার সরবরাহ করা জল থেকেই ডায়েরিয়া ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছিল। যা মানতে নারাজ পুর-প্রশাসন।

দক্ষিণ কলকাতার ১০১ থেকে ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডেই ডায়েরিয়ার প্রবণতা বেশি। ৯২ নম্বর ওয়ার্ডেও ডায়েরিয়া আক্রান্ত রোগীর সন্ধান মিলেছে। সূত্রের খবর, গত তিনদিনে আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। সোমবারও শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বেশ কিছু আক্রান্ত।

আগামী ২ - ৩ দিনে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা পুরসভার। তবে এই ধরণের পরিস্থিতি রুখতে প্রয়োজনীয় পরিকাঠামোর অভাব রয়েছে খোদ কলকাতা পুরসভাতেই। এই ঘটনায় তা আরও একবার প্রমাণিত।

First published: 09:56:47 AM Feb 13, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर