বঙ্গ ক্রিকেটে ‘একুশে আইন’, বেসরকারি লিগে খেলা নিয়ে ফতোয়া সিএবি-র

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 12:48 PM IST
বঙ্গ ক্রিকেটে ‘একুশে আইন’, বেসরকারি লিগে খেলা নিয়ে ফতোয়া সিএবি-র
File Photo
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 12:48 PM IST

#কলকাতা: রাতারাতি একুশে আইন বঙ্গ ক্রিকেটে। আইসিএলের ছায়ায় কড়া ফতোয়া। অনুমোদনহীন টুর্নামেন্ট নিষেধাজ্ঞা ক্রিকেটার, কোচ, নির্বাচক, অবজার্ভার, আম্পায়ারদের জন্য। তবে নজিরবিহীন ফতোয়া নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ময়দান।

আইসিএলের ছায়ায় একুশে আইন। বোর্ডের পথেই হাঁটল সিএবি। পত্রপাঠ কাঁচি বেসরকারি ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে। রীতিমত বিজ্ঞপ্তি দিয়ে। বঙ্গ ক্রিকেটে প্রথমবার। আইনজীবী ঊষানাথ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে ঘোষণা সৌরভ-অভিষেকদের। দশ বছর আগে বোর্ডের বিরুদ্ধে গিয়ে সমান্তরাল টি টোয়েন্টি লিগ আইসিএল শুরুর উদ্যোগে যে জট তৈরি হয়েছিল, এখানেও সে রকমই জটের আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে। এই লিগে খেললে ভবিষ্যতে বাংলার প্রতিনিধিত্বও করা যাবে কি না, তাও স্পষ্ট নয়।

ঘটনার সূত্রপাত, বেঙ্গল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খবর প্রকাশ্যে আসতে। এক বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে আইপিএলের ধাঁচে অনূর্ধ্ব ১৭ টুর্নামেন্টে আইকন হিসেবে রাখা হয় বাংলার ক্রিকেটারদের। বিভিন্ন ভূমিকায় দেখা যায় সিএবির কোচ, অবজার্ভার, নির্বাচকদের নাম। রীতিমত টাকা দিয়ে ফ্রাঞ্চাইজি কেনার সুযোগ। আর এইখানেই বিপত্তি, টনক নড়ে সিএবি-র।

শুধু ক্রিকেটাররা নন। নির্বাচক, অবজার্ভার, আম্পায়ার কেউই একুশে আইনের বাইরে নন। সিএবির অনুমোদন ছাড়া অন্য টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ নিষিদ্ধ। অম্বর রায়, অনূর্ধ্ব ১৭ ক্রিকেটাররাও এই নোটিসের আওতায়। তবে সিএবির একুশে আইন নিয়ে দ্বিমত ময়দানে। কেউ কড়া নোটিসকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন। কারও প্রশ্ন সিএবি নিজে কবে এমন টুর্নামেন্ট করবে ? বিপিএলেই বা বিলম্ব কেন ?

রিপোর্টার: ঈরণ রায় বর্মন

First published: 11:45:53 AM Jan 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर