সপ্তাহে কাজের দিন মাত্র চার, আর বাকি দিন ছুটি ! সেই ‘সুদিন’ কবে আসছে ?

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jun 27, 2017 11:01 AM IST
সপ্তাহে কাজের দিন মাত্র চার, আর বাকি দিন ছুটি ! সেই ‘সুদিন’ কবে আসছে ?
Photo : AFP
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jun 27, 2017 11:01 AM IST

#নিউইয়র্ক:  প্রতিদিন কাজ করতে করতে প্রত্যেকেই ক্লান্ত ৷ অফিসের মাত্রা-তিরিক্ত চাপ নিতে নিতে অনেক সময়েই বিরক্তি বোধ করে থাকেন মানুষ ৷ রবিবারের অপেক্ষায় প্রত্যেকেই থাকেন ৷ অনেক অফিসেই শনি ও রবিবার দু’দিন ছুটি থাকলেও তা সবার ভাগ্যে জোটে না ৷ সপ্তাহে যে কোনও এক দিনই ছুটি পান অধিকাংশ অফিসের কর্মীরা ৷ তবে এই সমস্যার সমাধান হতে চলেছে দ্রুত ৷ কারণ বিশ্ব বিখ্যাত ই-কমার্স সংস্থা আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা মনে করেন, আর ৩০ বছরের মধ্যেই এমন দিন আসবে , যখন মানুষ শুধু সপ্তাহে চার দিন এবং প্রত্যেকদিন ৮-৯ ঘণ্টার বদলে মাত্র চার ঘণ্টা কাজ করবেন !

এমন কথা শুনলে অনেকেই খুশি হবেন ৷ বিশেষ করে বেসরকারি অফিসের কর্মীরা তো বটেই ৷ কারণ প্রত্যেকদিন আট-নয় ঘণ্টার শিফট করার কথা থাকলেও অধিকাংশ সময়েই সেটা গিয়ে দাঁড়ায় ১০-১২ ঘণ্টায় ৷ কখনও কখনও আবার তার থেকেও বেশি ৷ যা অত্যন্ত ক্লান্তিকর যে কোনও মানুষের পক্ষেই ৷ আর কোনও উপায় নেই বলে চাকরিজীবীদের এভাবেই দিনর পর দিন কেটে যাচ্ছে ৷ কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি তাদের সেই দুঃসময় কাটতে চলেছে বলে জানিয়েছেন জ্যাক মা ৷

গেটওয়ে-১৭ কনফারেন্সে নিউজ চ্যানেল সিএনবিসি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জ্যাক মা বলেন, ‘‘ আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স আগামী দিনে মানুষের জীবন অনেক সহজ করে দেবে। আমি মনে করি আগামী ৩০ বছরের মধ্যে মানুষ মাত্র চার ঘণ্টা কাজ করবে আর সেটাও সপ্তাহে মাত্র চার দিন। আমি মনে করি মানুষের মতো যন্ত্র বানানো উচিৎ নয়। বরং এমন যন্ত্র বানানো উচিৎ যা দিয়ে  সম্ভব হবে সেই কাজ যা মানুষ করতে পারে না।’

জ্যাক মা মনে করেন, আগামী দিনে যন্ত্র মানুষকে নয়, মানুষই যন্ত্রকে নিয়ন্ত্রণ করবে। একই সঙ্গে তাঁর বিশ্বাস, প্রযুক্তির আরও বেশি উন্নতি অনেক সমস্যা তৈরি করবে। এমনকি যুদ্ধও। প্রযুক্তির মাত্রাতিরিক্ত উন্নতি ‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ’-এর কারণ হলে তাতে অবাক হওয়ার মতো কিছু থাকবে না বলেই  মনে করেন তিনি ৷

 ই-কমার্স সংস্থা আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা ই-কমার্স সংস্থা আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা

First published: 10:57:06 AM Jun 27, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर