‘বিচারব্যবস্থা ও সংবাদমাধ্যম, দুই ক্ষেত্রেই কেন্দ্র অতিরিক্ত হস্তক্ষেপ করছে’ টুইটে অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 12, 2018 04:28 PM IST
‘বিচারব্যবস্থা ও সংবাদমাধ্যম, দুই ক্ষেত্রেই কেন্দ্র অতিরিক্ত হস্তক্ষেপ করছে’ টুইটে অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
File Photo
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 12, 2018 04:28 PM IST

#কলকাতা: দেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা ৷ সাংবাদিক বৈঠক ডেকে শীর্ষ আদালতের প্রশাসনিক কাজকর্ম নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন চার বিচারপতি । তাদের অভিযোগ, সুপ্রিমকোর্টের প্রশাসন ঠিকঠাক চলছে না। গত কয়েক মাস ধরে অনেক কিছুই ঘটছে যা অবাঞ্ছিত। গণতন্ত্র আজ বিপন্ন। মূলত মামলা বন্টন নিয়ে চার বিচারপতি ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন। এ প্রসঙ্গে সরাসরি প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রকে ব্যর্থ বলেই অভিহিত করেছেন তারা।

এমন নজিরবিহীন ঘটনায় স্তম্ভিত গোটা দেশ ৷ বিচারব্যবস্থার ধারক ও বাহক যারা তাদের এমন অভিযোগে তীব্র প্রতিক্রিয়া সব মহলে ৷ এই ঘটনায় বিচারব্যবস্থায় কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলে ট্যুইটে মোদি সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তাঁর অভিযোগ, সংবাদমাধ্যমের মতো বিচারব্যবস্থায় অতিরিক্ত হস্তক্ষেপ করছে কেন্দ্র তার ফলশ্রুতিই এই ধরনের ঘটনা ৷

ট্যুইট করে মমতা বলেছেন,

‘সুপ্রিম কোর্টের ঘটনা যন্ত্রণাদায়ক ৷ সুপ্রিম কোর্ট নিয়ে চার সিনিয়র বিচারপতির যে অভিযোগ, তা নাগরিক হিসেবে সত্যিই যন্ত্রণার ৷ বিচার ব্যবস্থা ও সংবাদমাধ্যম গণতন্ত্রের স্তম্ভ ৷ দুই ক্ষেত্রেই কেন্দ্র অতিরিক্ত হস্তক্ষেপ করছে, যা গণতন্ত্রের পক্ষে অত্যন্ত বিপজ্জনক ৷’

শুক্রবার বিচারপতি জে চেলামেশ্বর নিজের বাড়িতেই ডাকেন সাংবাদিক বৈঠক ৷ প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের পর তিনিই শীর্ষ আদালতের দ্বিতীয় প্রবীণ সাংবাদিক ৷ তাঁর সঙ্গেই সাংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন বিচারপতি কুরিয়েন জোসেফ, বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ও বিচারপতি মদন লকুর ৷

First published: 04:22:42 PM Jan 12, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर