চিনের বাধায় ফের ‘রেহাই’ জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Feb 07, 2017 07:30 PM IST
চিনের বাধায় ফের ‘রেহাই’ জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের
Photo : AFP
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Feb 07, 2017 07:30 PM IST

#নয়াদিল্লি: ভারত চেয়েছিল আগে ৷ তারপর আমেরিকা ৷ দুই দেশই রাষ্ট্রসংঘে জানিয়েছিল আন্তর্জাতিক স্তরে ‘জঙ্গি’ হিসেবে চিহ্নিত করা হোক জইশ প্রধান মাসুদ আজহারকে ৷ তবে ভারত-আমেরিকার এই প্রস্তাবহে আপাতত জল ঢালল চিন ৷ মঙ্গলবার রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে মাসুদ আজাহারকে ‘জঙ্গি’ ঘোষণার প্রস্তাবে ভারত-আমেরিকার বিরুদ্ধে ভোট দিল চিন ৷ জৈশ-ই-মহম্মদের প্রধান আজহারকে খোলাখুলি সমর্থন করল বেইজিং৷

গত বছরই মাসুদ আজহারকে জঙ্গি ঘোষণা করার প্রস্তাব রাষ্ট্রসংঘে তুলেছিল ভারত ৷ আমেরিকা ভারতের এই প্রস্তাবের পাশে দাঁড়িয়েছিল ৷ এ বছর শুধু আমেরিকা নয়, আজহার মাসুদকে আন্তর্জাতিক ‘জঙ্গি’ ঘোষণা করার প্রস্তাবে ভারত, আমেরিকার পাশে আসে ব্রিটেন ও ফ্রান্স ৷ তবে সব প্রস্তাবেই জল ঢালল চিন ৷ ‘টেকনিক্যাল’ স্থগিতাদেশ চেয়ে আজহারের নাম রাষ্ট্রসংঘের জঙ্গি তালিকায় তোলার বিষয়টি আরও ছয় মাস পিছিয়ে দিল চিন৷

ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেড মৌলানা মাসুদ আজহার। সংসদ ভবন, মুম্বই থেকে পাঠানকোটে হামলার মূল চক্রী জইশ-ই-মহম্মদের মাথাকে আটক করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের একাধিক সংবাদমাধ্যম এ খবর জানালেও পাক সরকার এখনও এ খবরে সিলমোহর দেয়নি। দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে নির্বিঘ্নে পাকিস্তানে বসে সন্ত্রাসের ছক কষে গিয়েছে মাসুদ। পাঠানকোট হামলার পর যখন ভারতের সঙ্গে আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার উপক্রম, তখন চাপের মুখে পাকিস্তানের এই পদক্ষেপ। আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, ভারতের তথ্য পেয়েই জঙ্গি দমনে অবশেষে পাকিস্তান তৎপর হয়েছে। বুধবার পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও সেনাপ্রধান রাহিল শরিফের উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পরই জইশ-ই-মহম্মদের সঙ্গে জড়িত একাধিক সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সংগঠনের কার্যালয় চিহ্নিত করে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ৷ পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে ৷ পাশাপাশি পাঠানকোট তদন্তে ভারতের সঙ্গে আলোচনা করে পাঠানকোটে বিশেষ তদন্ত দলও পাঠাতে চেয়েছে পাকিস্তান । পাঠানকোট নিয়ে পাক তৎপরতা যে এখনই সম্পর্কের বরফ গলাতে পারছে না, তার প্রমাণ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সুরে সেনাপ্রধানের হুমকি। যে কোনও পরিস্থিতির জন্য সেনাবাহিনী প্রস্তুত, এ কথা বলে দিল্লির তরফে নতুন করে চাপ বাড়ালেন দলবীর সিং সুহাগ। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর লাহোর সফর যাতে ব্যর্থ হয়ে না যায়, তাই এখনই বিদেশ সচিব পর্যায়ের বৈঠক বাতিলের কথা বলছে না ভারত। অতীতের সিঁদুরে মেঘের কথা মাথায় রেখে আপাতত আলোচনা স্থগিত রাখার কথা ভাবছে বিদেশ মন্ত্রক।

First published: 07:30:24 PM Feb 07, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर