কলকাতায় ফের বাড়ি ভেঙে মৃত্যু

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 16, 2017 01:03 PM IST
কলকাতায় ফের বাড়ি ভেঙে মৃত্যু
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 16, 2017 01:03 PM IST

#কলকাতা: এগারো দিনের মাথায় কলকাতায় ফের বাড়ি ভেঙে মৃত্যু। টালা পোস্ট অফিস লাগোয়া এলাকায় একটি পুরোন বাড়ির ছাদ ভেঙে মৃত্যু হল কিশোরীর। দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী পূজা কুমারী গুপ্তা ওই বাড়িতে বাবা-মায়ের সঙ্গে ভাড়া থাকত। ২০১১ সালেই ওই বাড়িকে বিপজ্জনক বলে নোটিশ দিয়েছিল কলকাতা পুরসভা। এর আগেও ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটেছে। তারপরও ঝুঁকি নিয়ে সেখানেই বাস করছিলেন ভাড়াটিয়ারা। দুর্ঘটনার পর বাড়িটি ভাঙার কাজ শুরু করেছে পুরসভা।

বড়বাজারের শিবতলা লেনে দুর্ঘটনা স্মৃতি এখনও টাটকা। পনেরো দিনও কাটেনি। ফের বিপজ্জনক বাড়ি ভেঙে মৃত্যু। এবার টালা পোস্ট অফিস লাগোয়া এলাকায় দুর্ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার রাত দুটো। আচমকাই একতলা বাড়ির ছাদের একাংশ ভেঙে পড়ে। বিকট শব্দে বাড়ির অন্যান্য বাসিন্দারা রাস্তায় বেরিয়ে পড়েন। ছাদ ভেঙে ঘুমন্ত অবস্থায়তেই মারাত্মক জখম হয় ১৭ বছরের পূজা কুমারী গুপ্তা। হাতপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। ।

২০০১ সালেই এই বাড়িকে বিপদজ্জনক ঘোষণা করে নোটিস ঝুলিয়ে দেয় কলকাতা পুরসভা। তারপরও বাড়ির বাসিন্দারা ঝুঁকি নিয়ে ওই বাড়িতে বাস করছিলেন। মাস খানেক আগেও এই বাড়িতে দুর্ঘটনা ঘটেছিল। সেবার পুরসভার তরফে বাসিন্দাদের সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু বাসিন্দাদের হুঁশ ফেরেনি। প্রাণ দিয়ে তার খেসারত দিলেন বাড়ির ভাড়াটিয়ারা। শেষমেশ বিপজ্জনক বাড়িটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয় পুরসভা।

পাঁচ সেপ্টেম্বর বড়বাজারের শিবতলা লেনে পুরোন বাড়ি ভেঙে একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়।তারপরও হুঁশ ফিরছে না বিপজ্জনক বাড়িগুলির বাসিন্দাদের।

First published: 01:03:28 PM Sep 16, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर