পার্টি ফান্ডের অনুদানে জেটলির নয়া নিয়ম, রাজনৈতিক দলগুলির হিসাব দেখে চক্ষু চড়কগাছ !

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 01, 2017 07:37 PM IST
পার্টি ফান্ডের অনুদানে জেটলির নয়া নিয়ম, রাজনৈতিক দলগুলির হিসাব দেখে চক্ষু চড়কগাছ !
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 01, 2017 07:37 PM IST

#নয়াদিল্লি: রাজনৈতিক দলগুলির অজানা সোর্স থেকে পাওয়া অনুদানের বহর দেখলে চক্ষু চড়কগাছ হতে বাধ্য ৷ বুধবার বাজেট অধিবেশনে রাজনৈতিক দলের অনুদানের ওপর কড়া নজর দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ৷ ২০০০ টাকার বেশি অঙ্কের নগদ অনুদানের হিসেব নেবে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ৷

এই পরিস্থিতিতে একবার নজর বুলিয়ে নেওয়া যাক ভারতের জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলির সংগৃহীত অনুদানের উপর ৷

২০১৪-১৫ সালে ৬টি জাতীয় পার্টির দেওয়া হিসেব অনুযায়ী অজানা ব্যক্তি বা সংগঠনের থেকে পাওয়া মোট অনুদানের পরিমাণ ১,৮৬৯.১১ কোটি টাকা ৷ এই ছয়টি পার্টি হল বিজেপি, কংগ্রেস, বহুজন সমাজবাদী পার্টি, এনসিপি, সিপিএম এবং সিপিআই ৷ গোটা দেশ থেকে ২০১৪-১৫ সালে পার্টি ফান্ডে জমা পড়েছে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ ৷ এর মধ্যে মোট অনুদানের ৫১ শতাংশ অর্থাৎ ৬৪৮.৬৬ কোটি টাকার দাতাদের কোনও পরিচয়ই নথিভুক্ত নেই ৷

জাতীয় পার্টিগুলির সদস্য-নেতারাই জানাচ্ছেন, পার্টি ফান্ডের মোট অনুদানের ৪৯ শতাংশ স্বেচ্ছা অনুদানের অঙ্ক ২০ হাজার টাকার উপরে ৷ অর্থাৎ অনুদানকারীদের প্রায় অর্ধেক চাঁদা ২০০০ তো অনেক দূরের কথা, ২০ হাজারের কম অঙ্কে জমা পড়ে না ৷

বহুজন সমাজবাদী পার্টির দাবি, তারা ২০ হাজারের বেশি টাকার অনুদান বা চাঁদা কখনই পান না ৷ দাবির সত্যতা যাচাই করা সম্ভবপর নয়, কারণ পার্টির অনুদানের বিস্তারিত তথ্য কোথাও নথিভুক্ত নয় ৷

অন্যদিকে, চাঁদা থেকে সবচেয়ে বেশি আয় যাদের সেই বিজেপি দাবি অনুদানকারীদের কোনও তথ্যই তাদের কাছে নেই ৷ অথচ, ২০ হাজার টাকার বেশি অঙ্কের চাঁদা সবচেয়ে বেশি এই পার্টির ফান্ডেই জমা পড়েছে ৷ রিপোর্ট বলছে, পার্টির মোট চাঁদার ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ৪৩৪.৬৭ টাকা এসেছে এমন উৎস বা ডোনারের থেকে, যাদের পরিচয় কোথাও নথিভুক্ত হয়নি ৷

সিপিএম পার্টির মোট আয় ৫৯.২৭৫ কোটি টাকা ৷ এর মধ্যে ৬ শতাংশ অর্থাৎ ৪৩৪.৬৭ কোটি টাকার হিসেব রয়েছে ৷ অর্থাৎ কে বা কোন সংগঠন কত টাকা দিয়েছে তার তথ্য জমা দিয়েছে এই দল ৷

এমতাবস্থায় কালো টাকার লেনদেন কমাতে রাজনৈতিক দলগুলির ২০০০ টাকার বেশি অঙ্কের চাঁদা জমা পড়লেই হিসেব দেখানোর প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী ৷ কিন্তু বর্তমানে ৬টি জাতীয় দলের আয় ও অনুদানের জমা করা হিসেব দেখলে অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবের বাস্তবায়ন নিয়ে প্রশ্ন ওঠে ৷

জাতীয় দলের পার্টি ফান্ডে জমা পড়া অনুদানের বিস্তারিত হিসেব:-

বিজেপি

মোট আয় বা অনুদান- ৮৭২.০২ কোটি

২০ হাজারের বেশি অঙ্কের চাঁদার পরিমাণ- ৪৩৭.৩৫ কোটি

২০ হাজারের কম অঙ্কের অনুদানের পরিমাণ- ৪৩৪.৬৭ কোটি (৪৯.৮৪%)

কংগ্রেস

মোট আয় বা অনুদান- ২০৭.০৪ কোটি

২০ হাজারের বেশি অঙ্কের চাঁদার পরিমাণ- ১৪১.৪৬ কোটি

২০ হাজারের কম অঙ্কের অনুদানের পরিমাণ- ৬৫.৫৮ কোটি (৩১.৬৭%)

বহুজন সমাজবাদী পার্টি

মোট আয় বা অনুদান- ৯২.৮০ কোটি

২০ হাজারের বেশি অঙ্কের চাঁদার পরিমাণ- একটাও নয়

২০ হাজারের কম অঙ্কের অনুদানের পরিমাণ- ৬৫.৫৮ কোটি (১০০%)

এনসিপি

মোট আয় বা অনুদান- ৩৮.৮২ কোটি

২০ হাজারের বেশি অঙ্কের চাঁদার পরিমাণ- ৩৮.৮২

২০ হাজারের কম অঙ্কের অনুদানের পরিমাণ- একটাও নয়

সিপিএম

মোট আয় বা অনুদান- ৫৯.২৭৫ কোটি

২০ হাজারের বেশি অঙ্কের চাঁদার পরিমাণ- ৩.৪১৯ কোটি

২০ হাজারের কম অঙ্কের অনুদানের পরিমাণ- ৫৫.৮৫ কোটি (৯৪.২৩%)

বাজেট অধিবেশনে অরুণ জেটলি জানিয়েছেন, নগদ ২০০০ টাকার থেকে বেশি অনুদান নিলে, রাজনৈতিক দলকে হিসেব দিতে হবে ৷ শুধু তাই নয়, এই অনুদান রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া অ্যাক্ট অনুসারে সংশোধন করা হবে ৷ রাজনৈতিক দলগুলোকে রেজিস্টার অফিসে এসে অনুদানের হিসেব দেখাতে হবে ৷ এই প্রসঙ্গে জেটলি বলেছেন রাজনৈতিক দলগুলোর অনুদানের ওপর নজর দেওয়া দরকার ৷

জেনে নিন রাজনীতিতে অনুদানের ৩ গুরুত্বপূর্ণ দিক

১) কোনও রাজনৈতিক দলই নগদে ২০০০ টাকার বেশি চাঁদা নিতে পারবে না ৷

২) রাজনৈতিক দলগুলোকে চাঁদা নেওয়ার সময় ডিজিটাল লেনদেন ও চেক ব্যবহার করতে হবে৷

৩) রাজনৈতিক দলগুলোকে রেজিস্টার অফিসে এসে অনুদানের হিসেব দেখাতে হবে ৷ এই প্রসঙ্গে জেটলি বলেছেন রাজনৈতিক দলগুলোর অনুদানের ওপর নজর দেওয়া দরকার ৷ রাজনৈতিক দলগুলিকে আয়কর রিটার্ন দিতে হবে ৷

First published: 07:37:07 PM Feb 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर