সাফল্যের খিদে এতটুকু কমেনি দু’বারের চ্যাম্পিয়ন এটিকে-র

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Nov 17, 2017 06:07 PM IST
সাফল্যের খিদে এতটুকু কমেনি দু’বারের চ্যাম্পিয়ন এটিকে-র
ATK Team Practice Session
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Nov 17, 2017 06:07 PM IST

#কলকাতা: ইন্ডিয়ান সুপার লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেও সবচেয়ে বেশি গোল করতে পারেনি এটিকে। আক্রমণের পরিসংখ্যানে চোখ বোলালেই দেখা যাবে যে, খেলেনি সবচেয়ে বেশি পাসও। বিপক্ষের গোল লক্ষ্য করে শট নেওয়ার সংখ্যাতেও পিছিয়ে। কিন্তু এটিকে-র ঘরে যা রয়েছে, তা আর কারোর নেই ! আইএসএলে দু’বারের চ্যাম্পিয়নের শিরোপা, যা আসলে মাঠ থেকে জিতে ফেরার প্রতিজ্ঞা আর ম্যাচ বের করে আনার নির্দয় মনোভাবেরই ফসল।

আধুনিক ফুটবলের অনুরাগীরা ম্যাচে প্রিয় দলের জয়ের পাশাপাশি বিনোদনও চায় ৷ এব্যাপারে গত বছর মলিনার এটিকে একশোয় একশোয়  পায়নি ৷ কিন্তু ফাইনালে বিপক্ষকে পুরোটা সময় আটকে রেখে টাইব্রেকারে বাজি জিতে নিয়েছিল ৷ এবছর এটিকে দলের আমূল পরিবর্তন ঘটেছে ৷ কোচ থেকে প্লেয়ার, গতবারের চ্যাম্পিয়ন দলের প্রায় কেউ নেই বললেই চলে ৷ স্প্যানিশ শিবির ছেড়ে এবার ব্রিটিশ মন্ত্রে দল গড়েছে সঞ্জীব গোয়েঙ্কার দল ৷ কোচ হয়েছেন টেডি শেরিংহ্যাম এবং টেকনিক্যাল ডিরেক্টর অ্যাশলে ওয়েস্টউড।

যে কোনও সমস্যায় পড়লে সেই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসাই হল এটিকে-র সবচেয়ে বড় গুণ। আইএসএলে গত তিন বছরে ৫০ ম্যাচের মধ্যে ২০টি ড্র-ও করেছে তারা। শেরিংহ্যাম এবং ওয়েস্টউড দলে চাইবেন যে কোনও মূল্যে জিততেই হবে এই মানসিকতা। প্রতি আক্রমণ নির্ভর ফুটবলের দর্শনে ভর করে।

এটিকে-র নতুন কোচ শেরিংহ্যামের মতে, ‘‘ চ্যাম্পিয়ন দলের কোচ হওয়াটা বিরাট চ্যালেঞ্জ, সন্দেহ নেই। সবাই জানে আমাদের লক্ষ্য আবারও চ্যাম্পিয়ন হওয়াই। তাই সবাই চাইবে আমাদের আটকাতে। সে কারণেই তৈরি থাকতে হবে আমাদেরও ৷ ’’

এবারের আইএসএল-এ ব্রিটিশ কোচদের রমরমা, মেনে নিয়েছেন। তিনি ছাড়াও ইংরেজ কোচ হিসাবে চেন্নাইয়িন এফসি-তে আছেন জন গ্রেগরি, জামশেদপুর এফসি-র দায়িত্বে স্টিভ কপেল। আবার, কেরল ব্লাস্টার্সের দায়িত্বে থাকা রেনে মিউলেনস্টিন ডাচ হলেও প্রধানত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেই কোচিং করিয়েছিলেন।

শেরিংহ্যাম আর ওয়েস্টউড খোলাখুলি বলেননি কিছুই। কিন্তু যে যে ফুটবলারকে সই করিয়েছে এটিকে, মনে করা যেতেই পারে যে, আরও ‘ডাইরেক্ট’ ফুটবল খেলানোর ভাবনাই কাজ করছে। ওয়েস্টউড সেভাবেই খেলিয়েছিলেন বেঙ্গালুরু এফসি-কে। রবিন সিং আর রবি কিন দুর্ধর্ষ জুটি হয়ে উঠতে পারেন যেমন, দু’দিকের উইং ধরে খেলার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে জয়েশ রানে এবং বিপিন সিং-কে। পরিশ্রমী ডিফেন্ডার আশুতোষ মেহতা এবং ফুলব্যাক প্রবীর দাস, যাঁরা দুজনেই বিপক্ষের বক্সে ক্রস পাঠাতে ওস্তাদ। রক্ষণের মাঝখানে নিয়ে আসা হয়েছে ইংরেজ টম থর্পকে। কিন্তু দলের সবচেয়ে শক্তিশালী জায়গা মাঝমাঠ ৷ যেখানে নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকছেন ইউজেনিসন লিংডো আর কোনর টমাস থাকবেন বিধ্বংসী ভূমিকায়। গোলে থাকছেন দলের অন্যতম প্রধান ভরসা দেবজিৎ মজুমদার এবং জুসি জাসকেলাইনেন ।

0344

চতুর্থ আইএসএল-এ দলের সংখ্যা এবং ম্যাচের সংখ্যাও বেড়েছে। এটিকে-কে সামান্য চিন্তায় ফেলতে পারে এটুকুই। দলের লড়াকু মানসিকতা ভেঙে এটিকে-কে হারানো সবসময়ই কঠিন। তবে শেরিংহ্যামকে ভাবতে হবে পরপর ম্যাচ খেলার চাপ কীভাবে কাটিয়ে উঠবেন তা নিয়েই। কোচ হিসেবে তিনি কাজ করেছিলেন লিগ টু-তে স্টেভেনেজ ক্লাবে। এবার এটিকে-তে এসে প্রমাণ করতে চাইছেন, দুর্দান্ত ফুটবলারের পাশাপাশি কোচ হিসাবেও তাঁর দক্ষতার কথাও।

সেই দিক দিয়ে ভারত আদর্শ মঞ্চ হয়ে উঠতেই পারে শেরিংহ্যামের কাছে। নিজের ভাবনা অনুযায়ী দলকে গড়ে তোলার স্বাধীনতা পাবেন এখানে। আর যে দলের দায়িত্ব নিয়েছেন তার চেয়ে ভাল দলও হয়তো পেতেন না তিনি ৷ কারণ এটিকে-ও বদল চাইছে এবার। যদিও অনুরাগীরা চাইছেন সেই একই সফল এটিকে-কে মাঠে দেখতে ৷

ATK SQUAD

Domestic players: Mohanraj Nalappan, Robin Singh, Jayesh Rane, Kunzang Bhutia, Eugeneson Lyngdoh, Darren Caldeira, Shankar Sampingraj, Rupert Nongrum, Hitesh Sharma, Keegan Pereira, Ronald Singh, Anwar, Debjit Majumder, Bipin Singh, Augustin Fernandes, Prabir Das & Ashutosh Mehta.

International players: Conor Thomas, Thomas Joseph Thorpe, Jordi Figueras Montel, Carl Paul Baker, Robert Keane, Jussi Albert Jääskeläinen, Jose Egas Dos Santos Branco & Njazi Kuqi.

First published: 06:07:35 PM Nov 17, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर