জিএসটির হাত ধরে বাড়ছে বাণিজ্যিক গাড়ির চাহিদা, বাজারে নতুন কী আনল অশোক লেল্যান্ড ?

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 24, 2018 02:44 PM IST
জিএসটির হাত ধরে বাড়ছে বাণিজ্যিক গাড়ির চাহিদা, বাজারে নতুন কী আনল অশোক লেল্যান্ড ?
Nitin Seth, President - Photo-Light Commercial Vehicles, Ashok Leyland
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 24, 2018 02:44 PM IST

#কলকাতা: জিএসটির হাত ধরে বাজার বাড়ছে লাইট কমার্সিয়াল ভেহিকেলস বা LCV-র চাহিদা। জিএসটির কারণে বড় ও মাঝারি পণ্য পরিবহণের উপযোগী পরিকাঠামো তৈরিতে জোর দিচ্ছে বিভিন্ন সংস্থা। এর হাত ধরেই এলসিভির বাজারে তৈরি হচ্ছে নতুন সম্ভাবনা। আগামী ৩ বছরে দেশে এলসিভির বিক্রি ৩০ শতাংশ হারে বাড়বে বলেই আশাবাদী গাড়ি নির্মাতা সংস্থাগুলো। এই সম্ভাবনার দিকে তাকিয়েই কলকাতায় নতুন এলসিভি ‘দোস্ত প্লাস’ বাজারে আনল অশোক লেল্যান্ড।

সংস্থার প্রেসিডেন্ট (এলসিভি) নীতীন শেঠের দাবি, দোস্ত এলসিভি সিরিজের জনপ্রিয়তার দিকে তাকিয়ে নতুন ও উন্নতমানের এলসিভি বাজারে আনার উদ্যোগ। দেশে ইতিমধ্যেই দোস্ত সিরিজের গাড়ি ব্যবহার করছেন প্রায় ১.৭ লক্ষ মানুষ। দোস্ত প্লাস সিরিজে থাকছে ১৮ শতাংশ অতিরিক্ত পে-লোড, ৭ শতাংশ অতিরিক্ত জায়গা। ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের কথা ভেবেই দোস্ত প্লাস তৈরি হয়েছে বলে দাবি সংস্থার। এতে কম খরচে বেশি পণ্য পাঠানো যাবে বলেও দাবি সংস্থার।

Mr. Nitin Seth, President - Light Commercial Vehicles, Ashok Leyland

দোস্ত প্লাসের তিনটি মডেল বাজারে ছাড়ছে সংস্থা। থাকছে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত ভার্সনও। সবকটি মডেলই তৈরি হবে সংস্থার হপার প্ল্যান্টে। দেশের অন্যতম বাণিজ্যিক গাড়ি নির্মাতা সংস্থা অশোক লেল্যান্ড ব্যবসা বাড়াতে পাখির চোখ করছে পূর্বাঞ্চলকে। সংস্থার দাবি, পশ্চিমবঙ্গ-সহ পূর্বাঞ্চলে এলসিভির বিক্রি তুলনায় কম। সংস্থার এলসিভি বিক্রির মাত্র ১৫ শতাংশ আসে এই অঞ্চল থেকে। জিএসটির হাত ধরে এই ছবি বদলাতে পারে বলে আশা সংস্থার। যদিও এরাজ্যে এলসিভি নির্মাণে কারখানা গড়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছে অশোক লেল্যান্ড। রাজ্যে অশোক লেল্যান্ডের গাড়ি কারখানা নিয়েও কোনও মন্তব্য করতে চাননি সংস্থার প্রতিনিধিরা।

First published: 02:44:31 PM Jan 24, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर