UNESCO-এর বিচারে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজের স্বীকৃতি পেল ভারতের এই শহর

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jul 09, 2017 12:43 PM IST
UNESCO-এর বিচারে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজের স্বীকৃতি পেল ভারতের এই শহর
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jul 09, 2017 12:43 PM IST

#আহমেদাবাদ: আন্তর্জাতিক সংগঠন UNESCO-এর বিচারে বিশ্বের অন্যতম সেরা ঐতিহ্যশালী শহরের তকমা পেল আহমেদাবাদ ৷ এর আগে ভারতের কোনও শহর এই স্বীকৃতি পায়নি ৷ শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ইউনাইটেড ন্যাশনস এডুকেশনাল, সায়েন্টিফিক এ্যান্ড কালচারাল অর্গানাইজেশন অর্থাৎ ইউনেস্কোর তরফ থেকে আহমেদাবাদকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সিটি হিসেবে ঘোষণা করা হয় ৷

দিল্লি ও মুম্বইয়ের মতো অভিজাত শহরকে পিছনে ফেলে ইউনেস্কোর বিচারে অন্যতম সেরা ঐতিহাসিক শহর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে গুজরাটের অন্যতম আকর্ষণ ৷

ইউনেস্কোর এই ঘোষণার পর আনন্দে আপ্লুত গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি ৷ তিনি বলেছেন, দেশের মধ্যে প্রথম, আহমেদাবাদের এই স্বীকৃতিতে শুধু গুজরাটবাসী নয়, গর্বিত গোটা দেশ ৷ UNESCO-কে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের সঙ্গে সঙ্গে তিনি নিজেও এই সুসংবাদ ট্যুইট করেন ৷

খুশি বিজেপি প্রেসিডেন্ট অমিত শাহও ৷ তিনি বলেন, এই খবর শুনে ভীষণ খুশি হয়েছি ৷ এই মুহূর্ত প্রত্যেক ভারতবাসীর কাছেই গর্বের ৷

দেওয়ালের শহর বলে বিখ্যাত এই শহর এখন বিশ্বের ঐতিহ্যশালী শহরগুলির মধ্যে অন্যতম হিসেবে ইউনেস্কোর তালিকায় ঠাঁই পেয়েছে ৷ যদিও ২০১১ সালে ৩১ মার্চ ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সিটি-র সম্ভাবনাময় শহরগুলির তালিকায় দিল্লি, মুম্বই, লখনউয়ের মতো শহরের পাশাপাশি আহমেদাবাদের নামও নথিভুক্ত হয়েছিল ৷

জনপ্রিয়তায় আহমেদাবাদকে কোনওভাবেই অবহেলা করা যায় না ৷ এ শহরের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে রয়েছে বহু লিখিত, অলিখিত, কথিত ইতিহাস ৷ এই শহরে প্রায় ৬ হাজার বছরেরও অধিক পুরনো স্থাপত্যের হদিশ মেলে ৷ এ শহরের এমন ২৬টি এএসআই সুরক্ষিত স্থাপত্য রয়েছে ৷ ইতিহাসের পাতায় হারিয়ে যাওয়া পল সম্প্রদায়ের জীবনযাত্রার নিদর্শন আঁকা রয়েছে এ শহরের বুকেই ৷ এছাড়া ১৯১৫ থেকে ১৯৩০ পর্যন্ত মহাত্মা গান্ধির বাস ছিল আহমেদাবাদেই ৷

First published: 12:42:52 PM Jul 09, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर