সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক রায়, নাবালিকা স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণের সামিল

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 12, 2017 12:07 PM IST
সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক রায়, নাবালিকা স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণের সামিল
Supreme Court Representative image (Network18)
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 12, 2017 12:07 PM IST

#নয়াদিল্লি: ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের। নাবালিকা স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সঙ্গম ধর্ষণের সমতুল। ১৫-১৮ বছরের মেয়েকে স্ত্রী রূপে গ্রহণ করার পরও তার সঙ্গে যৌন মিলন ধর্ষণের সামিল বলেই মনে করছে শীর্ষ আদালত ৷ এদিনের ঐতিহাসিক রায়ে সর্বোচ্চ আদালত জানিয়েছে, ১৮ বছরের কম বয়সী স্ত্রীয়ের সঙ্গে যদি স্বামী যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন তাহলে তাঁকে ধর্ষণ বলে গণ্য করা হবে ৷তবে বৈবাহিক ধর্ষণের বিষয়ে কোনও রায় দেয়নি দেশের শীর্ষ আদালত।

সুপ্রিম কোর্ট ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৫ ধারায় উল্লেখিত ব্যতিক্রমকে এদিন খারিজ করে দিয়েছে। এই ধারায় বলা হয়েছে, ১৫ বছরের বেশি বয়সী স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণের আওতায় পড়বে না । অর্থাৎ নাবালিকা সঙ্গে যৌন সঙ্গম ধর্ষণ বলে মানা হলেও নাবালিকা স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে স্থাপনে ছাড় পেতেন পুরুষেরা ৷ এই বৈষম্য নিয়েই প্রশ্ন ওঠে ৷ সংসদ কিভাবে ১৮ বছর বয়সের কম মেয়ের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে ছাড় দিতে পারে, যেখানে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগে বিয়ে আইনিভাবে গণ্য নয় এবং ১৮ বছরের পরই তার সম্মতি মান্য ৷ এই মর্মে একটি পিটিশন দায়ের হয় শীর্ষ আদালতে ৷

সর্বোচ্চ আদালতের পর্যালোচনা, কেউ যদি তাঁর ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সী স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন, তাহলে সেটা অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে। এরকম ঘটনা ঘটলে নাবালিকা স্ত্রী এক বছরের মধ্যে তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন। শীর্ষ আদালতের এই পদক্ষেপে নাবালিকা বিবাহ রুখতে সহায়তা করবে বলে মনে করছেন সমাজত্ত্ববিদরা ৷সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে সাধুবাদ জানিয়েছেন রাজ্য মহিলা কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুনন্দা মুখোপাধ্যায়।

সুপ্রিম কো‍র্টের পর্যালোচনা

---------------------------

- ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সী স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করলে, তা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে

- নাবালিকা স্ত্রীর সঙ্গে যৌনমিলন সবসময়ই ধর্ষণ

- কারণ তাতে নাবালিকার মৌলিক অধিকার ক্ষুণ্ণ হয়

- নাবালিকা স্ত্রী এক বছরের মধ্যে তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে পারেন<

/p>

বাল্য বিবাহ রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারকে আর্জিও জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। একই সঙ্গে এটা স্পষ্ট করা হয়েছে ম্যারিটাল রেপ-এর মত বৃহত্তর বিষয়ে তাঁরা নাক গলাচ্ছে না। সুপ্রিম কোর্টে মদন বি লোকর এবং দীপক গুপ্তার বেঞ্চ আজ এই ঐতিহাসিক রায় দেন। এই বিষয়ে পিটিশন দাখিল করে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সেই সংস্থার হয়ে সওয়াল করেন আইনজীবী গৌরব আগরওয়াল। ​

First published: 11:58:12 AM Oct 11, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर