GST চালু হলে সাধারণ মানুষের কী সুবিধা ও অসুবিধা হতে চলেছে

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jun 30, 2017 03:56 PM IST
GST চালু হলে সাধারণ মানুষের কী সুবিধা ও অসুবিধা হতে চলেছে
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jun 30, 2017 03:56 PM IST

#নয়াদিল্লি: আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা ৷ আজ মধ্যরাত থেকই লাগু হতে চলেছে জিএসটি ৷ তারপরই এক দেশ। এক কর। আজ মধ্যরাতে সংসদে বিশেষ অধিবেশনের মাধ্যমে চালু হচ্ছে জিএসটি যুগ। ৩০ জুন রাত বারোটার ঘণ্টা বাজার পরই লাগু হবে GST অর্থাৎ Goods And Sevice Tax ৷ এরপর কী হবে সেই নিয়ে ধোঁয়াশায় অধিকাংশ দেশবাসী ৷ অনেকেই বুঝতে পারছেন না সাধারণ মানুষের মধ্যে এর কী প্রভাব পড়তে চলেছে ৷ আমজনতার লাভ হবে না ক্ষতি তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ৷ বিভিন্ন মহলে জিএসটি এখন আলোচনার মূল বিষয় ৷ দেখে নিন এক নজরে জিএসটি লাগু হলে সাধারণ মানুষের জীবনে কী প্রভাব পড়তে চলেছে ৷

১. জিএসটি অথার্ৎ এক দেশ, এক কর। অথার্ৎ আর আলাদা করে কোনও কর দিতে হবে না ক্রেতাদের ৷ ক্রেতাকে একটি পণ্য কিনতে বা পরিষেবা নিতে বর্তমানে একাধিক ট্যাক্স বা কর দিতে হয়। পরিষেবা কর, উৎপাদন শুল্কের মতো কিছু কর নেয় কেন্দ্র। রাজ্যগুলি নেয় সেলস ট্যাক্স, লাক্সারি ট্যাক্স, ভ্যাটের মতো কর। আলাদাভাবে না নিয়ে, এক ছাতার তলায় সব করকে আনতেই গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স বা পণ্য ও পরিষেবা করের জন্ম। অর্থাৎ, ক্রেতা একটি পণ্য কিনলে বা পরিষেবা নিতে চাইলে যে একটিমাত্র কর দেবেন, সেটাই জিএসটি।

২. এক ট্যাক্স হয়ে যাওয়া কর প্রদান ও আদান অনেক সহজ হয়ে উঠবে ৷

৩. এবার থেকে সমাজের সমস্ত স্তরের মানুষকে জিনিসপত্র বা পরিষেবার জন্য একই কর দিতে হবে ৷

৪. মনে করা হচ্ছে জিএসটি চালু হলে এক করের নীতি হওয়ায় স্বচ্ছতা আসবে অনেকটাই ৷

৫. কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আগে জানিয়ে ছিলেন, এই ক্যাটোগরির ৯০ শতাংশ পরিচালন করবে রাজ্য, বাকিটুকু কেন্দ্র ৷ এই রাজস্ব আয় কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে ৫০:৫০ ভাগে বন্টিত হবে ৷

৬. নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস শাক সবজি, তাজা ফল, দুধ বা দুগ্ধজাত দ্রব্য, মাংস, ডিম, চাল, গমের উপরে কোনও কর বসছে না।

৭. জিএসটি লাগু হলে দাম বাড়বে চা, কফি ও মশলার ৷ এই জিনিসগুলিতে এবার থেকে ৫ শতাংশ জিএসটি দিতে হবে ৷ বর্তমানে যাতে ৩-৪ শতাংশ ট্যাক্স দিতে হয় ৷

৮. টোব্যাকো, লাক্সারি গুডসেও দিতে হবে বাড়তি ট্যাক্স ৷ এখন থেকে এই পণ্যগুলির জন্য দিতে হবে ২৮ শতাংশ ট্যাক্স ৷

৯. পয়লা জুলাই থেকে জিএসটির কারণে ফার্স্ট,সেকেন্ড ও থার্ড এসি-র টিকিটের দাম বাড়তে চলেছে ৷

১০. ব্যাঙ্কিং পরিষেবাতে দিতে হবে ১৮ শতাংশ জিএসটি লাগু হবে ৷ এখন ব্যাঙ্কিং পরিষেবার ক্ষেত্রে দিতে হয় ১৫ শতাংশ জিএসটি ৷ এবার থেকে ডিমান্ড ড্রাফ্ট, ফান্ড ট্রান্সফারে বেশি টাকা দিতে হবে ৷

First published: 03:56:43 PM Jun 30, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर