বিসর্জন নিয়ে প্রশাসন কতটা ব্যর্থ হতে পারে আদালত তা বুঝিয়ে দিল, মন্তব্য অধীরের

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2017 07:46 PM IST
বিসর্জন নিয়ে প্রশাসন কতটা ব্যর্থ হতে পারে আদালত তা বুঝিয়ে দিল, মন্তব্য অধীরের
Durga Immersion Getty Image
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2017 07:46 PM IST

 #কলকাতা: 'দিদি', দেবীর বিসর্জন নিয়ে অকারণে বিতর্ক তৈরী করলেন। দেবীর আবাহনের আগেই বিসর্জন করে দিলেন আপনি! একটা প্রশাসন কতটা ব্যর্থ হতে পারে আদালত তা বুঝিয়ে দিল। বিসর্জন মামলায় হাইকোর্টের রায়ের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে কংগ্রেস রাজ্য সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরীর মন্তব্য ৷

বিসর্জন ঘিরে শুরু হয়ে গেল পুরোদস্তুর রাজনীতি। হাইকোর্টের রায়কে হাতিয়ার করে মাঠে নেমে পড়েছে বিরোধী শিবির ৷ মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে অধীরের মন্তব্য, ‘মহরমের তাজিয়া আর দেবীর বিসর্জনের শোভাযাত্রা একসঙ্গে পালন করে বাংলার মানুষ 'দিদি'র কৃত্রিম আশঙ্কা ভুল প্রমাণ করবে। 'দিদি', পূজোর কটা-দিন বাংলার মানুষকে ঝামেলা থেকে মুক্তি দিন। হিন্দু আর মুসলিম আমরা একসাথে বাঁচব -- হাসি আর আনন্দ নিয়ে ।’

বৃহস্পতি হাইকোর্ট জানায়, মহরমের দিনও দুর্গাপুজোর বিসর্জন হবে। তবে থাকছে কিছু বিধিনিষেধ। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় তাজিয়া ও বিসর্জনের আলাদা রুট করতে হবে। রাত বারোটার মধ্যে প্রতিমা নিয়ে পৌঁছতে হবে ঘাটে। রাজ্যের বিজ্ঞপ্তি খারিজ না করে বিসর্জন মামলায় অন্তর্বর্তী নির্দেশ দেয় কলকাতা হাইকোর্ট।

১৪ সেপ্টেম্বর বিসর্জন নিয়ে রাজ্যের জারি করা বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা হয়। এদিন আদালতের অন্তর্বর্তী নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশ চায় রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল। স্থগিতাদেশের আবেদন খারিজ করে দেয় আদালত। আদালতের এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রাজ্য সরকার সুপ্রিম কোর্টে যায় কিনা সেটাই দেখার।

First published: 07:46:09 PM Sep 21, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर