তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে মাইনাস -৬২ ডিগ্রিতে ! পৃথিবীর শীতলতম গ্রামের বাসিন্দাদের কী অবস্থা ?

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 17, 2018 06:09 PM IST
তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে মাইনাস -৬২ ডিগ্রিতে ! পৃথিবীর শীতলতম গ্রামের বাসিন্দাদের কী অবস্থা ?
Image credits: anastasiagav
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 17, 2018 06:09 PM IST

#মস্কো: ওয়মিয়াকন ৷ এই গ্রামের নাম হয়তো কেউ আপনারা আগে কখনও শোনেননি ৷ শোনার কথাও নয় ৷ পর্যটকদের জন্য আদর্শ জায়গা যে একেবারেই নয় এই গ্রাম ৷ শীতকালে এই অঞ্চলে তাপমাত্রা নেমে যায় -৫২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে (-৬২ ডিগ্রি ফারেনহাইট) ৷ মানুষের বসবাসের জন্য একেবারেই অযোগ্য ৷ কিন্তু যাঁরা সেখানকার বাসিন্দা, তাঁরা আর যাবেন কোথায় ৷ প্রবল শীতের সঙ্গে লড়াই না করে আর উপায় নেই ৷ সাইবেরিয়ার এই গ্রাম পৃথিবীর শীতলতম গ্রাম ৷ এবছর তাপমাত্রা এখন নেমে গিয়েছে -৬২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে !

ওয়মিয়াকন গ্রামে যারাই গিয়েছেন, তাঁদের অভিজ্ঞতা যে সাংঘাতিক, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না ৷ এক ফটোগ্রাফারের কথায়, ‘‘ -৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় আমি পাতলা ট্রাউজার পরে বেরিয়েছিলাম ৷ আমার মনে হচ্ছিল কেউ আমার পা ধরে রয়েছে ৷ আমার পা অসাঢ় হয়ে গিয়েছিল ৷ আমার চলার কোনও শক্তি ছিল না ৷ চোখের পাতা থেকে ঠোঁট, সবই বরফ হয়ে গিয়েছিল ৷ ’’

Image credits: m_troeva Image credits: m_troeva

এবছর ঠাণ্ডা আরও বেশি পড়েছে এই অঞ্চলে ৷ স্থানীয়দের কথায় -৬২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে কোনও কাজকর্ম করাই অসম্ভব ৷ পৃথিবীর শীতলতম অঞ্চলে এখন বাঁচাই কঠিন হয়ে পড়েছে স্থানীয়দের ৷ কিছু মানুষ অবশ্য দাবি করেছেন, তাপমাত্রা মাইনাস ৬২ নয়, মাইনাস ৬৮ ডিগ্রিতে নেমে গিয়েছে ৷ সরকারি হিসেব অনুযায়ী ১৯৩৩ সালে এই গ্রামে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছিল মাইনাস ৬৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ৷ সেটাই এখনও পর্যন্ত সর্বকালীন রেকর্ড ৷

Холодрыга :)))) апокалипсис :)))

A post shared by Фотостудия Волшебный Миша (@volshebniy_misha) on

First published: 05:56:56 PM Jan 17, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर